প্রতিদিন পানিতে ডুবে মারা যাচ্ছে ৪০ শিশু

প্রতিদিন পানিতে ডুবে মারা যাচ্ছে ৪০ শিশু

ঢাকা: দেশে প্রতিবছর ১৫ হাজার শিশু মারা যাচ্ছে পানিতে ডুবে। গড়ে প্রতিদিন ৪০ জন। বিভিন্ন গবেষণা রিপোর্ট বলছে, ঝুঁকি হিসেবে পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু এতোটা গুরুত্ব পায় না সরকারের পলিসিতে। ফসলের খেত থেকে নবান্নের পাকা ধান উঠেছে গৃহস্থের উঠোনে। গ্রামীণ নারীর কর্মব্যস্ততা তাই বেড়েছে বহুগুণ। নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার নরেন্দ্রপুর গ্রাম। এক উঠোনের চারপাশে এমন কয়েকটি ঘর। গৃহস্থালী কাজে যখন মায়েদের ব্যস্ততা, তখন বাড়ির পাশের পুকুর ধারে অনেকটা অরক্ষিত ঘুরাফেরা শিশুদের। তা নিয়ে দুশ্চিন্তাও কম নয় পরিবারের।

আইসিসিডিআরবিসহ কয়েকটি সংস্থার জরিপ বলছে, রোগ-ব্যধিতে নয়, প্রতি বছর দেশে প্রায় ১৫ হাজারেরও বেশি শিশুর মৃত্যু হয় পানিতে ডুবে। গড়ে প্রতিদিন মারা যায় ৪০ জন শিশু। যাদের বেশির ভাগেরই বয়স ১ থেকে ৫ বছর। আর বৈশ্বিক বিবেচনায় বাংলাদেশের অবস্থান একেবারে ওপরের দিকে।

নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার আরিসপুরের শামছুন্নাহার ও আবুল খায়েরের পরিবারও মুখোমুখি হন এমন এক দুর্ঘটনার। মাস তিনেক আগে পরিবারের নারী সদস্যদের ব্যস্ত ঘরের কাজে, সেই ফাঁকে ৪ বছরের শিশু মাহাদী ডুবে মারা যায় এই পুকুরেই। পানিতে ডুবে প্রতিবছর এত শিশুর মত্যুর ঘটনা ঘটলেও, খুব একটা চোখে পড়ে না সরকারি উদ্যোগ। আঁচল নামে এমন পরিচর্যা কেন্দ্র গড়ে তুলে, দেশের বিভিন্ন জায়গায় শিশুদের সুরক্ষার এমন উদ্যোগ নিয়েছে বেসরকারি সংস্থা সিআইপিআরবি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পানিতে ডুবে মৃত্যু হার কমাতে এখনই উদ্যোগ নেয়া দরকার। -চ্যানেল২৪