কাঁপছে দেশ, স্থবির জনজীবন

কাঁপছে দেশ, স্থবির জনজীবন

ঢাকা: মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহ কাঁপুনি তুলেছে সারাদেশে। ঘন কুয়াশা আর তীব্র ঠাণ্ডায় স্থবির জনজীবন। চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। এদিকে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় জবুথবু চুয়াডাঙ্গার মানুষ। শীতের এই প্রবাহ আরও দুদিন চলতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আগামী ২৫-২৬ ডিসেম্বর দেশের কোথাও কোথাও হাল্কা বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা আরও কমে আসবে বলেও জানানো হয়।

রাজশাহীতে কুয়াশা কম থাকলেও কনকনে ঠাণ্ডা বাতাসে বেড়ে গেছে শীতের মাত্রা। এতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন ছিন্নমূল ও শ্রমজীবী মানুষ। যাত্রী না থাকায় অলস সময় পারছেন রিকশা চালকরা। গত দুদিনে সূর্যের দেখা মেলেনি উত্তরের জনপদ রংপুরে। হাড় কাঁপানো শীতে বেকায়দায় পড়েছেন খেটে খাওয়া ছিন্নমূল মানুষ। ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। উত্তরের জনপদ পঞ্চগড়ে প্রতিদিন কমছে তাপমাত্রা। বেলা বাড়লেও কমছে না ঠাণ্ডা। কুয়াশার কারণে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। গরম কাপড়ের খোঁজে ফুটপাতের দোকানে ভিড় করছেন পথচারীরা।

ঠাকুরগাঁওয়ে দিনের অধিকাংশ সময় সূর্যের দেখা মিলছে না। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কেউ। শীতের প্রকোপ থেকে বাঁচতে সড়কে আগুন জ্বালিয়ে বসেছেন হতদরিদ্র মানুষ। এছাড়া, দিনাজপুর, রংপুর ও নওগাঁসহ তীব্র ঠাণ্ডা ও শৈত্যপ্রবাহের কবলে পড়েছে দেশের অধিকাংশ এলাকার মানুষ।