অপহরণের পর দুই দিন আটকে রেখে ছাত্রীকে ধর্ষণ

অপহরণের পর দুই দিন আটকে রেখে ছাত্রীকে ধর্ষণ

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৪) অপহরণের পর দুই দিন আটকে রেখে নেশা খাইয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ ওঠেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে মুঠোফোনের সূত্র ধরে অভিযুক্ত ধর্ষকের আত্মীয় উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের পাথারপুর গ্রামের আরিফ বিএসসির বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। অভিযুক্ত নাজমুল হাসানকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি সখীপুর পৌরসভার ছয় নম্বর ওয়ার্ডের ওসমান গণির ছেলে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে সখীপুর পিএম বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী নিজ বাড়ি শালাপ্রতিমা থেকে পিএসসি পরীক্ষার্থী ছোট ভাইকে নিয়ে সখীপুর পাইলট স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে যায়। ফেরার পথে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা নাজমুল ওই স্কুলছাত্রীকে জোর করে সিএনজিতে উঠিয়ে অপহরণ করে। এরপর আত্মীয় আরিফ বিএসসির বাড়িতে দুই দিন আটকে রেখে ওই স্কুলছাত্রীকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ করে। তবে অপহরণের দিন রাতেই স্কুলছাত্রীর বাবা সখীপুর থানায় নাজমুল হাসানের বিরুদ্ধে অপহরণের বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেন।