চোখ হারানোর প্রতিবাদে ব্যান্ডেজ বেঁধে সংবাদ পাঠ

চোখ হারানোর প্রতিবাদে ব্যান্ডেজ বেঁধে সংবাদ পাঠ

সোনার বাংলা ডেস্ক: ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে গুলি করে এক সাংবাদিকের চোখ অন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। এ ঘটনায় বিশ্বব্যাপী নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। এক চোখে ব্যান্ডেজ পরে অভিনব প্রতিবাদ করছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাংবাদিকরা। টিভি চ্যানেলের সংবাদ পাঠের সময়ও হচ্ছে এই প্রতিবাদ। সোমবার রাত ৯টার খবরে ফিলিস্তিন টিভির দুই সংবাদ উপস্থাপককে একইভাবে চোখে ব্যান্ডেজ পরে সংবাদ পড়তে দেখা যায়। অভিনব এই প্রতিবাদের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম গুলোতে ভাইরাল হয়েছে। ওই সাংবাদিকের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে চলছে মানববন্ধন। খবর এএফপির।

ফিলিস্তিনে ইসরাইলি দখলদারির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ নিত্যদিনের ঘটনা। সব সময়ই বিক্ষোভকারীদের ওপর টিয়ার গ্যাস, রাবার বুলেটের সঙ্গে তাজা গুলিও চালিয়ে আসছে ইসরাইলি বাহিনী। সেই সঙ্গে চলে ফিলিস্তিনের বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা। শুক্রবার এক বিক্ষোভ কভারেজের সময় ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে বাম চোখ হারান ৩৫ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি ফ্রিল্যান্স ফটোসাংবাদিক মুয়াত আমারনেহ।

মুয়াতের সহকর্মীরা জানান, হেবরনের কাছে একটি বিক্ষোভ চলাকালীন ইসরাইলি বাহিনী আমারনেহকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আমারনেহর পরিবার জানিয়েছে, আমারনেহ তার দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেছে। জেরুজালেমের হাদাসাহ মেডিকেল সেন্টারের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গুলি লেগে তার চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় চোখ হারানোয় আমারনেহর সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন বিশ্বের গণমাধ্যম কর্মীরা। প্রতিবাদ হিসেবে সবাই তাদের এক চোখ ঢাকা ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে প্রকাশ করছেন।

গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় ইসরাইলি নগ্ন হস্তক্ষেপের প্রতিবাদে কর্মীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে নিজেদের এক চোখ ঢাকা ছবি বা ভিডিও প্রকাশ করার সময় #মাইথ আই, #আই অব ট্রুথ ও #মাউথ আমারনেহ হ্যাশট্যাগগুলো ব্যবহার করে তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। ফিলিস্তিনের বেথেলহেমে রোববার মানববন্ধন করেন আমারনেহর পরিবারের সদস্যরা।