শপথ গ্রহণের মাধ্যমে পেঁয়াজ না খাওয়ার ঘোষণা!

শপথ গ্রহণের মাধ্যমে পেঁয়াজ না খাওয়ার ঘোষণা!

সোনার বাংলা ডেস্ক: কিছুতেই যেন থামছে না পেঁয়াজ দরের লাগামহীন ঘোড়া। দেশের মানুষের আলোচনার একমাত্র কেন্দ্রবিন্দু পেঁয়াজ আর পেঁয়াজ। দর কমানোর নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার। তবে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে পেঁয়াজ খাওয়া নিয়েও ইতিবাচক অনেক বিষয় উঠে আসছে। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধির এক ব্যতিক্রম প্রতিবাদ জানিয়েছে মেহেরপুরের গাংনীর সুধিজনদের নিয়ে গঠিত ‘প্রভাতী সংঘ’ নামের একটি সংগঠন। প্রতিবাদ স্বরূপ পেঁয়াজের দর স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত পেঁয়াজ বর্জনের ঘোষণা দিয়ে শপথ নিয়েছেন এ সংগঠনের সদস্যবৃন্দ। আজ শনিবার (১৬ নভেম্বর) সকালের হাঁটা শেষে মহিলা ডিগ্রি কলে প্রাঙ্গণে তারা শপথ গ্রহণ করেন। শপথ পাঠ করান গাংনী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যা. একেএম শফিকুল আলম।

শপথ বাক্য হুবহু তুলে ধরা হলো-
“আমরা শপথ করছি যে, পেঁয়াজের এই স্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি একটি অন্যায়। আমরা এ অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে চাই। তাই যতদিন পর্যন্ত পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হবে না ততদিন পর্যন্ত আমরা পেঁয়াজ বর্জন করলাম। আমাদের রান্নাঘরে আর কোনও পেঁয়াজ ঢুকবে না। আমরা আজকের এই শপথ অনুষ্ঠান থেকে সকলকে আমাদের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য আবেদন জানাচ্ছি।”

বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও মুক্তিযুদ্ধের গবেষক রফিকুর রশিদ রিজভী, গাংনী প্রেস ক্লাব সভাপতি রমজান আলী, কাজিপুর কলেজ অধ্যক্ষ মোকাদেচ্ছুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গাংনী জোনাল অফিসের ডিজিএম নিরাপদ দাসসহ প্রভাতী সংঘের সদস্যবৃন্দ এ শপথ গ্রহণ করেন।