ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নিয়ে নায়িকা নুসরাতের পোস্ট ভাইরাল

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নিয়ে নায়িকা নুসরাতের পোস্ট ভাইরাল

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নিয়ে কলকাতার নায়িকা ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহানের একটি পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সোমবার বিকালে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নিয়ে একটি পোস্ট দেন।

সেখানে একটি পোস্টার শেয়ার করে নায়িকা লিখেছিলেন, ‘সকলকে জানাই নবী দিবসের শুভেচ্ছা।’‬ আর সেখানেই কমেন্ট বক্সে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নেটিজেনদের একটি অংশ। ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নিয়ে তার শুভেচ্ছাকে কেউ কেউ স্বাগত জানালেও অধিকাংশ নেটিজেন তার সমালোচনা করেছেন।

শামসুল আলম খান কিরণ বলেছেন, ‘নুসরাত তুমি তো জাহান্নামের দিকে চলে গিয়েছ। এখন ঈদে মিলাদুন্নবীর কথা বলে তোমার কি হবে! সময় থাকতে ফিরে এসে তওবা পড়ে আল্লাহ্ তায়ালার কাছে নিজের ভুলের জন্য ক্ষমা চাও। আল্লাহ তায়ালা অতি দয়ালু ও মহা ক্ষমাশীল।’

কেউ আবার বলছেন, নুসরাতের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া উচিত। নুসরাতকে ভণ্ড বলেও উল্লেখ করেছেন অনেকে। যদিও অভিনেত্রী এসব মন্তব্যের জবাবে মুখ খোলেননি।

সুনমি লিসা বলেছেন, ‘নুসরাত জাহান আপনি একজন এমন মানুষ যে মুসলিম থেকে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন আবার ঈদে মিলাদুন্নবীর শুভেচ্ছাও জানাচ্ছেন। আল্লাহ তায়ালা আপনাকে হেদায়েত দান করুক, যাতে আপনি একদিন আল্লাহ তায়ালার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করতে পারেন।

কাজি রায়না হাসান নামের একজন লিখেছেন, ‘জানি না আপনার মন কী বলে, আপনি কীসের মধ্যে আছেন? মহান আল্লাহ তায়ালা ভালো জানেন, আল্লাহ আপনাকে সবকিছু বুঝবার তওফিক দান করুক। আমিন।

সুব্রত নামের একজন লিখেছেন, ‘বিশ্বের নবী দিবসে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন নসুরাত দিদি।’

ইমরান কায়সার বলেছেন, ‘জাহান্নামের কথা ভেবে নিজেকে সময় থাকতে শুধরিয়ে নাও। মনে রেখ মৃত্যুর পর সঙ্গে কিছুই যাবে না, শুধুমাত্র ঈমান ও আমল সঙ্গী হবে।’

এর আগে মুসলিম হয়েও দুর্গাপূজা উৎসবে অংশ নেয়ার পর ভারতের উত্তরপ্রদেশের একজন ইসলাম ধর্মীয় নেতার সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদ সদস্য ও অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।