স্টেজ শো’তে ব্যস্ত কুমার বিশ্বজিৎ

স্টেজ শো’তে ব্যস্ত কুমার বিশ্বজিৎ

বিনোদন প্রতিবেদক: বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনের চিরসবুজ গায়ক কুমার বিশ্বজিৎ। এখনো স্টেজ শো’তে নিয়মিত গান করছেন। তবে তার কাছে প্রতিনিয়ত স্টেজ শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করার জন্য যে পরিমাণ প্রস্তাব আসে কোন বাচ বিচার ছাড়া যদি স্টেজ শো’তে গাইতেন তাহলে বছরের প্রায় পুরোটা সময়ই তাকে স্টেজ শো নিয়েই ব্যস্ত থাকতে হতো। কিন্তু দেশের ভেতর স্টেজ শো’তে কিছু নিয়ম নিজেই মেনে চলেন বিধায় নিজের মতো করেই স্টেজ শো’তে ব্যস্ত থাকেন। যেমন আগামী ২০ নভেম্বর পর্যন্ত চাইলেই তিনি চার/পাঁচটি স্টেজ শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করতে পারতেন। কিন্তু পারিবারিক কাজকে গুরুত্ব দিয়ে কুমার বিশ্বজিৎ মঙ্গলবার সন্ধ্যার ফ্লাইটে একমাত্র ছেলে নিবিড়কে নিয়ে আমেরিকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন। সেখানে ছেলে ও স্ত্রীর সঙ্গে নিজের মতো করে কিছু সময় কাটিয়ে আগামী ২০ নভেম্বর দেশে ফিরবেন। কুমার বিশ্বজিৎ জানান দেশে ফিরে এসেই তিনি আগামী জানুয়ারি পর্যন্ত অর্থাৎ ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত স্টেজ শো’তে ব্যস্ত থাকবেন। এরইমধ্যে আরো স্টেজ শো’ও চূড়ান্ত হয়ে পরবর্তী মাস পর্যন্তও চলে যেতে পারে।

কুমার বিশ্বজিৎ’র ইভেন্ট ম্যানেজার ওমর মির্জা’ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা যায় আগামী জানুয়ারি পর্যন্ত কুমার বিশ্বজিৎ বরিশাল ক্যাডেট কলেজ, রাজধানীর উত্তরা ক্লাব, ময়মনসিংহের কমিউনিটি বেজড মেডিক্যাল কলেজ, যশোহর ক্যান্টনম্যান্ট কলেজ, কপোর্রেট শো বঙ্গবন্ধু আর্ন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র, নরসিংদীর আবুল ফয়েজ মোল্লা হাইস্কুল’সহ আরো বেশ ক’টি স্থানে স্টেজ শো’তে অংশ নেবেন। পাশাপাশি আরো কিছু স্টেজ শো’র কথা চলছে যা কিছুদিনের মধ্যেই চূড়ান্ত হবে। স্টেজ শো প্রসঙ্গে কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘এটা ঈশ্বরের অকৃত্রিম দয়া, আমার সর্বাত্বক চেষ্টা, আমার বাবা মায়ের আশীবার্দ, সর্বোপরি আমার শ্রোতা ভক্তদের আশীর্বাদ যে আমি এখনো সুস্থাবস্থায় গানের সাথেই আছি এবং নিয়মিত স্টেজ শো করছি। একজন মানুষের জীবনে সুস্থ থাকতে পারাটা যে ঈশ্বরের কতো বড় নিয়ামত তা যে সুস্থ থাকে সেই কেবল বলতে পারে। আমি আমার স্ত্রী সন্তান, মা’কে নিয়ে বেশ ভালো আছি। এটা সত্যি স্টেজ শো’তে যাবার আগে আমার নিজের কিছু প্রস্তুতি থাকে। স্থান বুঝে গান নির্বাচন করি এবং সর্বোপরি দর্শকের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করি গান গাওয়ার মধ্য দিয়েই যাতে তারা গানকে হৃদয় দিয়ে অনুধাবন করতে পারেন।’