আশ্রয় কারীদের বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আশ্রয় কারীদের বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সুন্দরবনে দস্যুদের যারা আশ্রয় দিয়েছে শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। দুপুরে বাগেরহাটে সুন্দরবন দস্যু মুক্ত ঘোষণার এক বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুন্দরবনের দস্যু পৃষ্ঠপোষকদের দ্রুত আত্মসমর্পণের আহ্বান জানান।

এদিকে সুন্দরবনে আবারো দস্যুতায় জড়িয়ে পড়লে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করেছেন RAB মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। সাবেক দস্যু বাহিনীর সদস্যদের ৬৮ টি মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিরও তাগিদ দেন তিনি। সুন্দরবনের দস্যুদের আত্মসমর্পণে ভূমিকা রাখায় অনুষ্ঠানে যমুনা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিনিধি মোহসীন উল হাকিমকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। গত বছর এই দিনে সবশেষ ৬টি বাহিনীর আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণা করেন।

এই উপলক্ষে বাগেরহাটের শেখ হেলালউদ্দিন স্টেডিয়ামে সাবেক দস্যুবাহিনীর সদস্যের নিয়ে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ২০১৬ সালের ৩১ মে যমুনা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিনিধি মোহসীন উল হাকিমের মধ্যস্থতায় প্রথম র‍্যাবের কাছে আত্মসমর্পণ করে মাস্টার বাহিনীর ১০ সদস্য। পরে একে একে আত্মসমর্পণ করে আরও ৩১ টি জলদস্যু বাহিনী। এদিকে ৩২ টি বাহিনীর মধ্যে ২৬টি দস্যু বাহিনীই সাংবাদিক মোহসীন উল হাকিমের মধ্যস্থতায় আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে।