অভিনয়ে নয় উপস্থাপনাতেই প্রতিষ্ঠা চান নীল হুরেজাহান

অভিনয়ে নয় উপস্থাপনাতেই প্রতিষ্ঠা চান নীল হুরেজাহান

বিনোদন প্রতিবেদক: প্রায় তিন বছর আগে বাংলাদেশের টিভি নাটকের চিরসবুজ জুটি আফজাল হোসেন ও সুবর্ণা মুস্তাফার সঙ্গে বদরুল আনাম সৌদের পরিচালনায় ‘অক্ষর থেকে উঠে আসা ভালোবাসা’ নাটকে প্রথম অভিনয় করেছিলেন এই সময়ের দর্শকপ্রিয় মিষ্টি হাসির উপস্থাপিকা নীল হুরেজাহান। এরপরেও তিনি আরো দুটি নাটকে অভিনয় করেছেন। কিন্তু অভিনয়ে তিনি স্বাচ্ছন্দ্য নন বলে নিজেকে উপস্থাপনাতেই ব্যস্ত করার নেশায় ছুটে চলেন। উপস্থাপনায় শুরুটা ছিলো তার বাংলাভিশনে। এই চ্যানেলের টানা তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি ‘দিন প্রতিদিন’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেন। এরইমধ্যে আবার অনেক সিনেমাতেও অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব পান তিনি। সিনেমার প্রধান নায়িকা হিসেবে কাজ করার প্রস্তাব পেয়েও শুধুমাত্র নিজেকে উপস্থাপনাতেই প্রতিষ্ঠিত করতে নীল হুরেজাহান উপস্থাপনাতেই নিজেকে ব্যস্ত করে তুলেছেন।

এক সময় এসে বাংলাভিশন থেকে নিজেকে বের হয়ে দেশের বেশ ক’টি স্যাটেলাইট চ্যানেলে কাজ শুরু করেন। শুরু করেন বিভিন্ন কর্পোরেট শো’র উপস্থাপনা। নীলের সৌন্দর্য্য, কথা বলার নান্দনিক ধরন এবং তার মিষ্টি হাসি তাকে একজন উপস্থাপিকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সহায়ক ভূমিকা রাখে। উপস্থপনা ভালোলাগে তার মুনমুন ও মারিয়ার। তবে উপস্থাপনায় নীল নিজেই আলাদা একটি স্টাইল তৈরী করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। নিয়মিত তাকে নিয়ে যারা কাজ করেন তারা তা উপলদ্ধি করেন। অবশ্য টিভি চ্যানেলে প্রচারিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উপস্থাপনার বদৌলতে অনেক দর্শকও এখন নীল হুরেজাহানের উপস্থাপনায় মুগ্ধ হন।

নীল বর্তমানে নিউজ টোয়েন্টিফোরের ‘ইটস অ্যামাজিং’, গাজী টিভির দুটি স্পোর্টস শো, চ্যানেল নাইনের ‘গ্ল্যামার জোন’র নিয়মিত উপস্থাপনা’সহ আরটিভির বিশেষ বিশেষ অনুষ্ঠানগুলোর উপস্থাপনা করছেন। আরটিভিতে প্রচার চলতি রিয়েলিটি শো ‘ক্যাম্পাস স্টার’র উপস্থাপনা করছেন। অনুষ্ঠানের প্রধান তিন বিচারক সজল, কনা, নাদিয়া তার উপস্থাপনার ভূয়শী প্রশংসা করেছেন। নীল হূরে জাহান জীবনের প্রথম উপস্থাপনার জন্য এক হাজার টাকা পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন বাংলাভিশন থেকে। উপস্থাপনার পাশাপাশি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবেও বেশ প্রশংশিত নীল। আদনান আল রাজীবের নির্দেশনায় তিনি প্রথম এশিয়ান পেইন্টস’র বিজ্ঞাপনে মডেল হন।

এরপর তিনি সাবরিনা আইরিনের ‘জিপি’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ক্লোজআপ কাছে আসার অসমাপ্ত গল্প’, ‘রুচি চানাচুর’ রনি ভৌমিকের ‘স্যামসাং মোবাইল’, মেজাবাউর রহমান সুমনের ‘ম্যাগি নুডুলস’সহ আরো বেশকিছু বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করে দারুণ জনপ্রিয়তা পান। নীল হুরেজাহান বলেন, ‘অভিনয়ের প্রতি ভালোলাগা ভালোবাসা আছে আমার। প্রতিনিয়তই নাটক সিনেমাতে অভিনয়ের প্রস্তাব পাচ্ছি। কিন্তু আমার মনের একান্ত ভালোলাগা উপস্থাপনাকে ঘিরে। তাই নিজেকে একজন উপস্থাপক হিসেবেই আমি প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। চাই সবার সহযোগিতা।’ ফেনীর মেয়ে নীলের প্রিয় অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি ও অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা।