মৌসুমীর বিরুদ্ধে বহিরাগতদের নিয়ে মিছিলের অভিযোগ মিশা-জায়েদের

বিনোদন প্রতিবেদক: চলচ্চিত্র শিল্পীদের সংগঠন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন আগামী ২৫ অক্টোবর। নির্বাচনকে সামনে রেখে চলছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। শুটিংয়ের ব্যস্ততা কমিয়ে প্রার্থীরা ভোট চেয়ে সাধারণ শিল্পীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম বিএফডিসি প্রাঙ্গন। বিএফডিসিতে শিল্পীদের দেখা মেলে কালেভদ্রে। তারপরও বিএফডিসি লোকে লোকারণ্য থাকে অধিকাংশ সময়। এদের বেশিরভাগ বহিরাগত। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বহিরাগতদের আনাগোনা আরো বেড়েছে।

এই নির্বাচনকে ঘিরে সম্প্রতি বিএফডিসিতে খল অভিনেতা ড্যানিরাজের কাছে শিল্পী সমিতি চত্বরে অপমানিত হয়েছেন চলচ্চিত্রের প্রিয়দর্শিনীখ্যাত মৌসুমী। এই নায়িকার সঙ্গে তর্কে জড়ান তিনি। একপর্যায়ে মৌসুমীকে তিনি ধাক্কা মারেন বলে অভিযোগ ওঠে। নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চনের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হয়। পরে মৌসুমীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন ড্যানিরাজ।

এদিকে মঙ্গলবার মৌসুমী এফডিসিতে বহিরাগতদের নিয়ে নির্বাচনী মিছিল করেছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মিশা-জায়েদ প্যানেল গতকাল সন্ধ্যায় এফডিসিতে শিল্পী সমিতিতে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন কমিশনারের কাছে নির্বাচনের মধ্যে এফডিসিতে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করার দাবি জানান।

মিশা সওদাগর নির্বাচন কমিশনারের উদ্দেশ্যে বলেন, ভবিষ্যতে যেন এ রকম বিব্রতকর অবস্থার পুনরাবৃত্তি না হয় তার জন্য আমি এবং আমার কার্যকরী পরিষদ অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও সদাসজাগ থাকতে বদ্ধপরিকর। আমি এবং আমার কার্যকরী পরিষদের সবার পক্ষ থেকে আপনার প্রতি অনুররোধ করছি, নির্বাচন কর্মকান্ডের শেষ পর্যন্ত বহিরাগতদের বিএফডিসিতে প্রবেশ নিষিদ্ধ করে একটি সুষ্ঠু, অবাধ, উৎসবমুখর নির্বাচন অনুষ্ঠান উপহার দেবেন।

এ বিষয়ে জায়েদ খান বলেন, ‘আমাদের সংবিধানে লেখা আছে এটা একটা অরাজনৈতিক ও অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। এখানে যারা আছেন সবাই শিল্পী, এর বাইরে কেউ নেই। তাহলে আমাদের এখানে রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাদের হাত ধরে বহিরাগতদের নিয়ে কেন মিছিল করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যে ৩০ বা ৪০ জন লোক পরশুদিন এখানে এসেছিল তারা সবাই আওয়ামী লীগ বা রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী। এটা খুবই দুঃখজনক। আমরা কেউ চাই না যে বহিরাগত কেউ এসে শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ভন্ডুল করুক। আমি বলতে চাই শিল্পীদের নির্বাচনে শুধু শিল্পীরাই থাকবে।’